বুধবার - মে ২২ - ২০১৯ ||
Home / বাংলাদেশ / রাজশাহী / রাজশাহী পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে সরকারি এটেনডেণ্টদের বসিয়ে রেখে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ

রাজশাহী পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে সরকারি এটেনডেণ্টদের বসিয়ে রেখে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ

সরকার বিপুল অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত যাত্রী সেবার মান কমছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি আন্ত:নগর ট্রেনে সরকারি এটেনডেণ্টদের অলস বসিয়ে রেখে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ব্যক্তি খাতকে উৎসাহিত করার নামে এসব এটেনডেণ্ট নিয়োগ দিতে দুটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করেছে রেল কর্তৃপক্ষ।

চুক্তি অনুযায়ী পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি আন্ত:নগর ট্রেনে ১২৬ জন বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। যাদের এটেনডেণ্ট হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে তাদের অধিকাংশই অদক্ষ ও অনভিজ্ঞ। এতে করে যাত্রী সেবার মান কমছে। একইসঙ্গে সরকার বিপুল অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকারি এটেনডেণ্টের শূন্য পদে জনবল নিয়োগের যথাযথ পদক্ষেপ না নিয়ে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের যৌক্তিকতা কী- তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

রেলওয়ের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ব্যক্তি খাতকে উৎসাহিত করা ও যাত্রী সেবার মান বাড়ানো এবং আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শূন্য পদে জনবল নিয়োগে দীর্ঘ সূত্রিতার কথা বলে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। দুটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তির মাধ্যমে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি আন্ত:নগর ট্রেনে পরীক্ষামূলকভাবে এসব এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে তাদের নিয়োগ কার্যকর হয়। আর চুক্তি মোতাবেক চলতি মার্চে তাদের নিয়োগের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তাই আবারো চুক্তির মেয়াদ বর্ধিত করতে রেলওয়ের একাধিক প্রভাবশালী কর্তা ব্যক্তি ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান জোর তৎপরতা শুরু করেছে। যে দুটি প্রতিষ্ঠানের সাথে রেল কর্তৃপক্ষ চুক্তি করেছে সেই প্রতিষ্ঠান দুটি হলো- শাহ আমানত এণ্টারপ্রাইজ এবং আলম এণ্টারপ্রাইজ।

এদিকে, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেয়ার তীব্র বিরোধীতা করেছে রেলওয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের একটি বড় অংশ। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ রেলওয়ে ক্যারেজ এটেনডেণ্ট কাউন্সিলের পক্ষ থেকে সম্প্রতি রেলওয়ে মহাপরিচালক বরাবর স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে। সংগঠনটির সভাপতি আবু জাফর সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের স্বাক্ষরিত ওই স্মারকলিপির অনুলিপি রেলমন্ত্রী, রেল সচিবসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে দেয়া হয়। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, ব্যক্তি খাতকে উৎসাহিত করার কথা বলে রেলওয়ের একটি চক্র পরিসেবার নামে আন্ত:নগর ট্রেনে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগে সহায়তা করেছে। এতে সরকার বিপুল অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এতে আরো বলা হয়, কতিপয় স্বার্থান্বেষী কর্মকর্তা জনবল স্বল্পতার দোহাই দিয়ে এ দুর্নীতি কর্মকান্ডে সহায়তা করে যাচ্ছেন। অথচ যাত্রী সেবার মান উন্নয়নে সরকার সরাসরি সরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দিয়েছে।

এছাড়া আরো জনবল নিয়োগের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। স্মারকলিপিতে পরিসেবার নামে লুটপাট ও রেলওয়ের রাজস্ব রক্ষাসহ সরকারের ভাবমূর্তি উজ্জল করতে এসব কর্মকা- থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। রেলওয়ের শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান আকন্দ নয়া দিগন্তকে বলেন, সরকারি এটেনডেণ্টের শূন্য পদে জনবল নিয়োগের যথাযথ পদক্ষেপ না নিয়ে বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের যৌক্তিকতা কী- তা আমরা জানতে চাই।

তিনি বলেন, সেরকারি এটেনডেণ্টদের নিয়োগের মেয়াদ চলতি মার্চে শেষ হচ্ছে। তাই আর কোনোভাবেই যেনো বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের চুক্তিটি আর বর্ধিত করা না হয়। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের ফলে সরকারি এটেনডেণ্টরা অনেকটা অলস সময় পার করছেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের ফলে সরকার বিপুল অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। পাশাপাশি অদক্ষ এটেনডেণ্টদের কারণে যাত্রী সেবার মান কমছে। এটা মেনে নেয়া যায় না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সরকারি এটেনডেণ্ট বলেন, আমরা বসে বসে অলস সময় পার করছি। আমাদের তেমন কোনো কাজ নেই। তারা বলেন, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের যৌক্তিকতা বা কারণ কী- তা আমাদের কাছে বোধগম্য নয়। এতে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আর কমছে যাত্রী সেবার মান। তারা আরো বলেন, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগের ফলে একদিকে সরকারকে অতিরিক্ত অর্থ গুনতে হচ্ছে। অন্যদিকে সরকারি এটেনডেণ্টদের অলস বসিয়ে রেখে বেতন দিতে হচ্ছে। আন্ত:নগর ধুমকেতু ট্রেনের যাত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সিমু আক্তার বলেন, আমি গত মাসে দুই দফা ও চলতি মাসে একবার রাজশাহী থেকে ঢাকায় গিয়েছিলাম। কিন্তু ট্রেনের ভেতরে আমার ‘চ’ বগিতে দীর্ঘ সময়েও এটেনডেণ্টদের দেখা মিলেনি। আমার মনে হয়, আসলে এটেনডেণ্টদের কাজ কী- তা তারা নিজেরাই বুঝে না। টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের যাত্রী রাজশাহীর মামুন অর রশিদ ও গোপালগঞ্জের নূর উদ্দিন বলেন, যাত্রী সেবার মান বাড়ার পরিবর্তে দিন দিন কমছে। এতে যাত্রীদের ভোগান্তি বেড়েছে।

তিনি বলেন, ট্রেনের ভেতরে বসার আসনগুলো ও নিচে ময়লা আবর্জনা থাকলেও ঠিকমত পরিষ্কার করা হয় না। এসব ব্যাপারে এটেনডেণ্টদের জানালে তারা বলেন, এটা আমাদের দায়িত্ব নয়। এ ব্যাপারে শাহ আমানত এণ্টারপ্রাইজের ম্যানেজার শহীদুল ইসলাম নয়া দিগন্তকে বলেন, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি আন্ত:নগর ট্রেনে ১২৬ জন এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ট্রেন পাঁচটি হলো- ধুমকেতু, রংপুর এক্সপ্রেস, টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস, একতা এক্সপ্রেস ও সুন্দরবন।

এক প্রশ্নের জবাবে ম্যানেজার শহীদুল ইসলাম বলেন, কিছু অদক্ষ থাকলেও বেশির ভাগই দক্ষ এটেনডেণ্ট। আর যাত্রী সেবার মান কমছে এমন অভিযোগ পুরোপুরি সঠিক নয়। তিনি বলেন, যাত্রী সেবার মান ধরে রাখতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব এটেনডেণ্টদের নিয়োগ গত বছরের ডিসেম্বরে কার্যকর করা হয়। আর চলতি মার্চে নিয়োগের মেয়াদ শেষ হবে। তবে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের চীফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার এ এমএম শাহ নেওয়াজ নয়া দিগন্তকে বলেন, বেসরকারি এটেনডেণ্ট নিয়োগ দেয়া দোষনীয় নয়। বরং এতে সরকার লাভবান হচ্ছে। তিনি বলেন, আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শূন্য পদে জনবল নিয়োগে দীর্ঘ সূত্রিতা লেগে যায়। আগামী ৫০ বছরেও এই জনবল নিয়োগ হবে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চুক্তি মোতাবেক চলতি মার্চে বেসরকারি এটেনডেণ্টদের নিয়োগের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তবে চুক্তির মেয়াদ বর্ধিত করা হবে কিনা সে সম্পর্কে সুনিদিষ্টভাবে কিছু বলেননি তিনি। 

স্বাধীন কথা ডট কম – ১২ মার্চ ২০১৯

About মাসুদ রানা রাব্বানী, ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী।

Check Also

সিরাজগঞ্জে নোংরা পরিবেশে লাচ্ছা সেমাই তৈরীর কারখানায় জরিমানা

জহুরুল ইসলাম, বেলকুচি  প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জ সদরের পৌর এলাকার নতুন ভাংগাবাড়ীর মেহমান লাচ্ছা সেমাই ফ্যাক্টরিকে ২০ হাজার …

বেলকুচিতে বাকী সাহেবের ৩য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

জহুরুল ইসলাম, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক গাজী আতিকুর রহমান বাকী সাহেবের ৩য় মৃত্যু …

রাজশাহীর তালাইমারী অবৈধ বালুঘাট বন্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী মহানগরীর তালাইমারী এলাকায় পদ্মার একটি অবৈধ বালুঘাট বন্ধে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *