শুক্রবার - আগস্ট ২৩ - ২০১৯ ||
Home / বাংলাদেশ / কুষ্টিয়া / প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলেও পুনঃ শুরু হল কুমারখালির সাথী লটারীর র‌্যাফেল ড্র’র জুয়ার আসর

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলেও পুনঃ শুরু হল কুমারখালির সাথী লটারীর র‌্যাফেল ড্র’র জুয়ার আসর

রফিকুল ইসলাম : প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলোও পুনঃ শুরু হল কুষ্টিয়ার কুমারখালির সাথী লটারীর র‌্যাফেল ড্র’র জুয়া আসর । কিছুদিন আগে লটারী নামক জুয়া আশর বন্ধ করে দেয়ার কারনে প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছিল সুশিল সমাজ । কিন্তু প্রশাসনসহ সবাইকে বৃদ্ধা আংগুল দেখিয়ে পুরো উদ্যমে কুষ্টিয়া কুমারখালী স্পোটিং ক্লাব মাঠে শুরু হয়েছে বাণিজ্য মেলা। এরপর ১৩ই জুন থেকে এই মেলায় শুরু হয় দৈনিক সাথী র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়া আসর। এই র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়া ছড়ি পড়ছে কুমারখালী সহ কুষ্টিয়া ও খোকসা শহর ও গ্রামে। এতে জন মনে নানা রকম প্রশ্ন দেখা দিচ্ছে নতুন করে। কেনই বা আবার শুরু হলো লটারি নামক জুয়ার আসর। ইতি মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মুহুর্তে ছড়িয়ে পড়েছে বিষয়টি। কেনইবা প্রশাষন নিরুপ ভুমিকা পালন করছে নতুন করে এ নিয়ে শুরু হচ্ছে নানা রকম গুঞ্জন। এ দিকে কয়েক বছর আগে কুষ্টিয়া হাই স্কুল মাঠ থেকে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পুরস্কার না দিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল সাথী লটারীর মালিকরা । কুমারখালীর মেলাতে আবার শুরু হয়েছিল র‌্যাফেল ড্র নামের প্রতারণা । প্রতিদিন কুষ্টিয়া শহরে এসে তারা বিক্রি করছে সাথী লটারীর জুয়ার টিকিট । জুয়াড়ী বাদশা ও আলীর নেতৃত্বে চলছে এই অপকর্ম । প্রত্যক বারের মত এবারো প্রতারক চক্রের টার্গেট ছিল মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার যা একবার বন্ধ হলেও আবার শুরু করেছে এই জুয়ারি বাদশা আর আলী নেতৃত্ব এই নিয়ে চিন্তাতে পরেছে সকল সুশিল সমাজ। কিন্তু পারেনি কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন ও পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত (বিপিএম বার) এর কঠোর পদক্ষেপে। কিছুদিন আগে কুমারখালী থানার ওসির নেতৃত্বে বন্ধ করা হয়েছে সাথী লটারীর র‌্যাফেল ড্র। জানা যায় যে, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার এর নির্দেশে দৈনিক সাথী র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়া বন্ধ করতে নির্দেশ দেন উপজেলা প্রশাসনকে। এর জের ধরে কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম মিজানুর রহমান অক্লান্ত পরিশ্রমে বন্ধ করা হয়েছিল জুয়ার আসর। তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আমি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিলে মেলা প্রাঙ্গণ থেকে সাথী র‌্যাফেল ড্র বন্ধ করেছিলাম কিন্তু আবার তারা শুরু করেছে ? তারা আক্ষেপ করে বলেন যে, আমরা এই বিষয়ে জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন ও পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত (বিপিএম বার) এর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। তিনি অনুমতি দিলেই আমরা দ্রুত ব্যাবস্থা নিব বলে জানান।

About মো: রফিকুল ইসলাম, জেলা প্রধান, কুষ্টিয়া।

Check Also

আরাফাত রহমান কোকো’র জন্মদিন ভুলে গেলো বিএনপি!

নিউজ ডেস্ক: বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকো দলে ছিলেন …

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে বিদেশি বিশেষজ্ঞ দল আসছে

এডিস মশার উপদ্রবের দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বুধবার তিন দিনের বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি …

কুষ্টিয়ায় নার্স হত্যার ঘটনায় প্রেমিক জসিম আটক : আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান

রফিকুল ইসলাম : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে নার্স বিলকিস হত্যার ঘটনায় প্রেমিক জসিমকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *