রবিবার - জুন ১৬ - ২০১৯ ||
Home / বাংলাদেশ / গাইবান্ধা / দুই বছরেও ব্যাংক কর্মী তন্ময় হত্যার কোনো কিনারা হয়নি!

দুই বছরেও ব্যাংক কর্মী তন্ময় হত্যার কোনো কিনারা হয়নি!

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) কর্মী তন্ময় গুপ্ত হত্যার দুই বছর পূর্ণ হলেও মামলার কোন কূল-কিনারা হওয়া তো দূরের কথা, হত্যা রহস্যই আজ পর্যন্ত উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। মামলার তদন্ত স্থবির হয়ে পড়ে রয়েছে। আসামীরা জামিনে মুক্ত হয়ে মামলা থেকে বাঁচার জন্য বিভিন্নভাবে তদ্বির করছে। নিহত তন্ময় গুপ্তের পরিবার ও আত্মীয় স্বজনের পক্ষ থেকে এসব অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা গেছে, মা শেফালী গুপ্তা, ছোট ভাই মন্টিসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনরা দুই বছরেও জানতে পারেননি না তন্ময় হত্যা রহস্য।
তন্ময় কুমার গুপ্ত রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, পঞ্চগড়ের হাড়িভাসা শাখার ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদে কর্মরত ছিলেন। তন্ময় কুমার গুপ্ত হত্যা মামলা পঞ্চগড় থানা পুলিশ থেকে সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত হত্যা রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। ফলে মামলার ভবিষ্যৎ নিয়ে দারুণ হতাশ হয়ে পড়েছেন নিহত তন্ময়ের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজন।
উ¬েল­খ্য, দিনাজপুরের ফুলবাড়ি উপজেলা সদরের পশ্চিম কাটাবাড়ি কালীবাড়ি রোড এলাকার মৃত বিশ্বমিত্র গুপ্তের ছেলে তন্ময় কুমার গুপ্ত ২০১৭ সালের ১৯ মার্চ রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের পঞ্চগড়ের হাড়িভাসা শাখায় ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদে যোগদান করেন। ব্যাংকের কাজের ব্যস্ততার কারণে ম্যানেজারের নির্দেশে তিনি ২৫ মে কাজ শেষে ব্যাংকের অফিস কক্ষেই রাত্রিযাপন করেন। সেখানেই তার রহস্যজনক মৃত্যু হয়। এর পর আড়াই মাস পর তার লাশের ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়া যায়। তাকে শ্বাস রোধে হত্যা করা হয়েছে বলে রিপোর্টে উলে­¬খ করা হয়।
পরে নিহত তন্ময় গুপ্তের মা শেফালী গুপ্তা ২০১৭ সালের ১৮ আগস্ট পঞ্চগড় থানায় অজ্ঞাতনামাসহ তিনজনের নাম উলে­খ করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। আসামীরা হলো-পঞ্চগড়ের হাড়িভাসা শাখা রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের নাইট গার্ড পঞ্চগড়ের ইসলামবাগ গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে বুলবুল আলম বিপ্ল¬¬ব(৩৫), ডাটা এন্ট্রি অপারেটর কুড়িগ্রাম উপজেলার রৌমারী উপজেলার ফুলকার চর গ্রামের মৃত চন্দউল্যার ছেলে নাজমুল ইসলাম(২৭) ও ব্যাংক ম্যানেজার পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার কালিয়াগঞ্জ এলাকার আবু জোহানুর আহম্মেদের ছেলে আবু জাফর মো. সালাম(৩২)।
আসামীদের মধ্যে নাইট গার্ড বুলবুল আলম বিপ্লবকে হত্যাকাণ্ডের পরের দিন ২৬ মে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে ৫দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। কিন্তু কোনো তথ্য উদঘাটন করতে পারেনি। পরে মামলাটি থানা থেকে সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়। সিআইডিও আজ পর্যন্ত হত্যা রহস্যের কোনো কূল-কিনারা করতে পারেনি। বর্তমানে তিন আসামীই জামিনে রয়েছে। মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছেন পঞ্চগড় সিআইডির ইন্সপেক্টর এনামুল হক। তিনি বলেন, তদন্ত চলমান রয়েছে।
অত্যন্ত বিনয়ী ও সৎ কর্মনিষ্ঠ হিসেবে তন্ময় গুপ্ত পাড়া প্রতিবেশী, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু মহলে পরিচিত ছিলেন। তিনি ব্যাংকের চাকরিতে যোগদানের মাত্র ২ মাস ৬ দিনের মধ্যে নির্মম হত্যার শিকার হওয়ায় গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
এদিকে, আজ ২৬ মে রোববার তন্ময় কুমার গুপ্তের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে তার স্মরণে ফুলবাড়ি উপজেলা সদরের পশ্চিম কাটাবাড়ি কালীবাড়ি রোড এলাকায় নিজ বাড়িতে গীতা পাঠসহ ধর্মীয় অনুষ্ঠান, ভোগরাগের আয়োজন করা হয়।

About মো: শামসুজ্জোহা, গাইবান্ধা

Check Also

এক কোটি ২৫ লাখ টাকা ঘুষ চাইলেন দুদক কর্মকর্তা

শিক্ষা কর্মকর্তা : আপনি বলছেন আমার সঙ্গে আলোচনা করবেন। দুদক কর্মকর্তা : না না, আমি …

গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সম্মানিত কয়েকজন সদস্যদের বিরুদ্ধে মিথ্যা,বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও মনগড়া তথ্য দিয়ে …

জন্ম, বিয়ে ও মৃত্যু ১৩ তারিখেই

কিছুদিন পূর্বে মামুনের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় হাতে লাগানো মেহেদির রঙ এখনো শুকায়নি। কিন্তু, সড়কে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *