বুধবার - মে ২২ - ২০১৯ ||
Home / অর্থনীতি / চরফ্যাশনে শিলাবৃষ্টিতে ঝরে গেছে আমের মুকল

চরফ্যাশনে শিলাবৃষ্টিতে ঝরে গেছে আমের মুকল

স্বাধীনকথা ডট কম
রিয়াজ মোর্শেদ, চরফ্যাশন, ভোলা।
ভোলা চরফ্যাশনে হঠাৎ ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে বেশিরভাগ আম গাছের মুকুল ঝরে পড়েছে। এতে অধিকাংশ গাছে আশানুরূপ আম না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
গত দুইদিনে থেমে থেমে বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ঝড় ও শিলাবৃষ্টির কারণে অধিকাংশ আম গাছের মুকুল ঝরে মাটিতে পড়ে যায়। এতে স্থানীয় আম চাষিদের স্বপ্ন ভেঙে যায়। মঙ্গলবার ভোর থেকে শুরু হওয়া থেমে থেমে বৃষ্টি, ঝড় ও শিলাবৃষ্টি বুধবার পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে। সঙ্গে হচ্ছে বজ্রপাতও। ঝরে পড়েছে গাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে মুকুল। তবে আমের মুকুলের ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা না গেলেও এই ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা সম্ভব নয় বলে দাবি করেছেন স্থানীয় আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা। তিনদিনের বৃষ্টি, ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে আমের মুকুল ঝরে পড়ায় চরম লোকসান গুনতে হবে বলে জানালেন স্থানীয় আমচাষি বাবলুর রহমান। তিনি বলেন, আম গাছে মুকুল যে পরিমাণ এসেছিল, তাতে অন্যান্য বছরের লোকসান অনেকটা পুষিয়ে নেয়া সম্ভব হতো।

চরফ্যাশন উপজেলা চরমাদ্রাজ গ্রামের কৃষক হাফেজ আবদুল মন্নান বলেন, আমাদের আমের মুকল সবই ঝরে গেছে। নুরাবাদ ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কামরুজ্জামান শিপন বলেন, এবার আমের মুকলের পরিমান বেশী রয়েছে। কিন্তু হঠাৎ শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় আমের মুকল ঝরে পরছে। আমরা কৃষি বিভাগ বিষয়গুলো মনিটরিং করছি।
উপজেলা কৃষি অধিদফতরের কর্মকর্তা মনোতোষ সিকদার বলেন, শিলাবৃষ্টি ও হালকা ঝড়ো বাতাসে আমের মুকুলের পাশাপাশি এই এলাকার কুল, গম, ডাল, সরিষা, নাবিজাতের আলুর ক্ষতি হয়েছে। তবে এ বৃষ্টি বোরো ধানের জন্য আশীর্বাদ। শিলাবৃষ্টির কারণে আমের মুকুল শতকরা ৩০ ভাগ নষ্ট হয়েছে।

বুধবার ০৬-০৩ – ২০১৯ খৃষ্টাব্দ

About মোঃ রিয়াজ মোর্শেদ, চরফ্যাশন, ভোলা।

Check Also

বোরহানউদ্দিনে ২ ব্যারেল চোরাই ডিজেল আটক

স্বাধীনকথা ডট কম ভোলার বোরহানউদ্দিনের মির্জাকালু নৌ-পুলিশ ফাড়িঁর কারেন্ট জাল বিরোধী অভিযানের সময় ২ ব্যারেল …

ভোলা সদর উপজেলায় আগামী জুনের মধ্যেই শতভাগ বিদ্যুৎতায়ন করা হবে

স্বাধীনকথা ডট কম ভোলা প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ এ স্লোগানকে সামনে …

দৌলতখানে ২ লক্ষ ৫০ হাজার রেনুপোনা জব্দ, আটক ১

স্বাধীনকথা ডট কম আদিল হোসেন তপু ভোলার দৌলতখান উপজেলায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার চিংড়িরেণুসহ এক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *